বই – কতিপয় হারাম বস্তু যা অনেকে নগণ্য ভাবে, তা থেকে সতর্কতা অপরিহার্য

4
Print Friendly

প্রবন্ধটি পড়া হলে, শেয়ার করতে ভুলবেন না

রহমান রহীম আল্লাহ্‌ তায়ালার নামে-

246

সংক্ষিপ্ত বর্ণনাঃ সংক্ষিপ্ত এই পরিসরে এমন কতিপয় হারাম জিনিস লক্ষ্য করবেন, যার হারাম হওয়ার কথা শরীয়তে প্রমাণিত এবং কিতাব এবং সুন্নাহ থেকে এর হারাম হওয়ার  প্রমানে দলীলও বিদ্যমান পাবেন। এগুলো তুলে ধরার পিছনে লেখকের লক্ষ্য হল, এর হারাম হওয়ার কথা সুস্পষ্টভাবে মুসলিম উম্মাহকে জানিয়ে দেওয়া এবং এ থেকে বাঁচতে নসীহত করা।

কতিপয় হারাম বস্তু যা অনেকে নগণ্য ভাবে – QA Server

কতিপয় হারাম বস্তু যা অনেকে নগণ্য ভাবে – Mediafire


'আপনিও হোন ইসলামের প্রচারক'
প্রবন্ধের লেখা অপরিবর্তন রেখে এবং উৎস উল্লেখ্য করে
আপনি Facebook, Twitter, ব্লগ, আপনার বন্ধুদের Email Address সহ অন্য Social Networking ওয়েবসাইটে শেয়ার করতে পারেন, মানবতার মুক্তির লক্ষ্যে ইসলামের আলো ছড়িয়ে দিন। "কেউ হেদায়েতের দিকে আহবান করলে যতজন তার অনুসরণ করবে প্রত্যেকের সমান সওয়াবের অধিকারী সে হবে, তবে যারা অনুসরণ করেছে তাদের সওয়াবে কোন কমতি হবেনা" [সহীহ্ মুসলিম: ২৬৭৪]

পাঠকের মন্তব্য

Loading Facebook Comments ...

4 মন্তব্য

  1. ami amar jibon e onk young age thkei ei poth e jhuke giyechi………….amar kche ekhn shbkichui(speccially duniabi kamonashomuho) orthohin mone hoi……….kintu ami Allah k onk bshi bhalobashi………shtti…….amar jibondharonk onk poriborton hoye giyeche………Allah pak amk toufink dan koruk jate kore ami unak aro jante pari………..ebng odrissho jogote gyan ahoron korte pari……….

  2. assalamualaikum,

    vai jan , ami 15 days age theke namaz pora suru korechi, vai ami purpe  onek gunah korechi,ami nije jani j onek boro gunah, kintu kokhono amer mone hoy ni j ami vul pothe achi, 15 din age amak ALLAH SUBHANAHU TALA amer vul bujia diachen.kintu ami namaz porer somoy  monta adik sadik chole jai, ate amer nijer onek kharap laGE, er theke ki babe ami mukti pabo. r amak jano allah maf kore den doa korben. 

  3. আলহামদুলিল্লাহ ভাই আল্লাহ আপনাকে হিদায়াত করেছেন। এখন ভাই আপনি বেশি বেশি করে তাওবা করুন এবং ইসলাম সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করুন। প্রথমে কুরআন দিয়ে শুরু করুন কুরআনের অর্থ বুঝে পড়ুন শাথে তাফসীর ও রাসুল (صلى الله عليه وسلم) আর জীবনী পড়ুন আর রামাদানে বেশি বেশি ইবাদাত করুন। ইনশাহাল্লাহ আল্লাহ আপনাকে মাফকরে দিবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here