বইঃ ইসলামে শাস্তির আইন

2
প্রবন্ধটি পড়া হলে, শেয়ার করতে ভুলবেন না
রহমান রহীম আল্লাহ্‌ তায়ালার নামে-

shasti Aynসংক্ষিপ্ত বর্ণনাঃ ইসলামের শাস্তি আইন একটি বাস্তবসম্মত আইন। অপরাধ দমনে এই আইনের কোনো বিকল্প নেই। তবে ইসলামের শাস্তি আইন ইসলামী রাষ্ট্র ছাড়া অন্য কোথাও প্রয়োগ করার প্রচেষ্টা বড় ধরনের জুলুম। অর্থাৎ ইসলামী আইন প্রয়োগ করতে হবে ইসলামী রাষ্ট্রে, অন্য কোথাও নয়।

ইসলামী শাস্তি আইনের মূল উদ্দেশ্য কাউকে শাস্তি দেয়া নয়; বরং অপরাধ সংঘটনের সুযোগকে বাধাগ্রস্ত করা। এ কারণেই মানব রচিত আইনে যেখানে অপরাধ সংঘটনের পরেই কেবল শাস্তির ব্যবসা রাখা হয়েছে, সে ক্ষেত্রে ইসলাম অপরাধ সংঘটনের আগেই এর সব উপায়-উপকরণ রোধ করে দেয়ার প্রতিই সর্বাধিক গুরুত্ব প্রদান করেছে। এ রকম প্রতিবন্ধকতা ও নিরাপত্তামূলক ব্যবসা গ্রহণের পরও কেউ অপরাধে লিপ্ত হয়ে পড়লে তখন ইসলাম তার বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবসা গ্রহণ করার নির্দেশ দিয়েছে।

ইসলাম শুধু অপরাধ ও শাস্তি বর্ণনা করেই ক্ষান্ত হয়নি; বরং প্রত্যেক অপরাধ ও শাস্তির সাথে আল্লাহভীতি ও পরকালের চেতনা উপসাপন করে মানুষের ধ্যানধারণাকে এমন এক জগতের দিকে ঘুরিয়ে দেয়, যার কল্পনা মানুষকে যাবতীয় অপরাধ ও গোনাহ থেকে পবিত্র করে দেয়। জনমনে আল্লাহতায়ালা ও পরকালের ভয় সৃষ্টি করা ছাড়া জগতের কোনো আইন, পুলিশ ও সেনাবাহিনীই অপরাধ দমনের নিশ্চয়তা দিতে পারে না। ইসলামের এই বিজ্ঞজনোচিত পদ্ধতিই জগতে অভূতপূর্ব বিপ্লব এনেছে এবং এমন লোকদের সমাজ গঠন করেছে, যারা পবিত্রতায় ফেরেশতাদের চেয়েও উচ্চ মর্যাদার অধিকারী। রাসূলুল্লাহ সা: বলেছেন, ‘মুমিন ব্যক্তি আল্লাহর কাছে তার নিকট অনেক ফেরেশতার চেয়েও অধিকতর সম্মানের অধিকারী।’ (ইবনে মাজাহ, [কিতাবুল ফিতান], হাদিস নং : ৩৯৪৭)

“ইসলামে শাস্তির আই্ন” গ্রন্থটি ইসলামে শাস্তির আইন সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা সৃষ্টিতে এবং ইসলামের শাস্তি আইন সম্পর্কে বিভ্রান্তি নিরসনে বড়ো রকমের অবদান রাখতে সহায়ক হবে।

ইসলামে শাস্তির আইন – QA Server
ইসলামে শাস্তির আইন – Mediafire
Print Friendly, PDF & Email


'আপনিও হোন ইসলামের প্রচারক'
প্রবন্ধের লেখা অপরিবর্তন রেখে এবং উৎস উল্লেখ্য করে
আপনি Facebook, Twitter, ব্লগ, আপনার বন্ধুদের Email Address সহ অন্য Social Networking ওয়েবসাইটে শেয়ার করতে পারেন, মানবতার মুক্তির লক্ষ্যে ইসলামের আলো ছড়িয়ে দিন। "কেউ হেদায়েতের দিকে আহবান করলে যতজন তার অনুসরণ করবে প্রত্যেকের সমান সওয়াবের অধিকারী সে হবে, তবে যারা অনুসরণ করেছে তাদের সওয়াবে কোন কমতি হবেনা" [সহীহ্ মুসলিম: ২৬৭৪]

2 মন্তব্য

  1. একচুয়ালি আমায় ভালো লেগেছে কিনতুক আপনার সঙ্গে আরো অনেক কথা আছে অনলাইনে কি কথা বলা যাবে তারপর আমি ইসলামিক ওকে আরো অন্য কিছু বলতে চাই জাকির নায়েকের ব্যাপারে এখনো অতটা বলা যাবে না বলব অবশ্যই পড়ে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.