সীরাহ কেন পড়া উচিৎ? রাসূল (সাঃ)-আপনার জন্য সর্বোত্তম আদর্শ – দ্বিতীয় পর্ব

5
Print Friendly

প্রবন্ধটি পড়া হলে, শেয়ার করতে ভুলবেন না

রহমান রহীম আল্লাহ্‌ তায়ালার নামে-

প্রথম পর্ব দ্বিতীয় পর্ব তৃতীয় পর্বচতুর্থ পর্বপঞ্চম পর্ব শেষ পর্ব

তিনিই ইতিহাসের একমাত্র ব্যক্তিত্ব যাকে সর্বক্ষেত্রে অনুসরণ করা উচিত…..

  • যদি আপনি একজন ব্যবসায়ী হয়ে থাকেন, তাহলে রাসূল (সাঃ) কে অনুসরণ করুন যখন তিনি ব্যবসায়ী হিসেবে শামদেশ ও হিজাযে বাণিজ্য করতেন এবং বাহরাইনে পণ্যসামগ্রী অর্জন করেছিলেন।
  • যদি আপনি একজন গরীব হয়ে থাকেন, তাহলে তাঁকে দৃষ্টান্ত হিসেবে গ্রহণ করুন কিভাবে তিনি আবু তালেব এর সংকীর্ণ গিরিপথে অবরুদ্ধ অবস্থায় ছিলেন এবং নিঃস্ব অবস্থায় নিজের আবাস ছেড়ে মদীনায় হিজরত করেছিলেন।
  • যদি আপনি একজন বাদশাহ্ হয়ে থাকেন, তাহলে রাসূলুল্লাহর সুন্নাহ্(তাঁর যাবতীয় কর্ম এবং কথা) অনুসরণ করুন কিভাবে তিনি সমগ্র আরব জাতিকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন এবং সকলের আনুগত্য লাভ করেছিলেন এমনকি অনেক বড় বড় ব্যক্তিত্বেরও।
  • যদি আপনি একজন দুর্বল মানুষ হয়ে থাকেন, তাহলে তাঁকে(সাঃ) উদাহরণ হিসেবে নিন কিভাবে শির্ক আচ্ছন্ন মক্কায় তিনি দোষাব্যস্ত হয়েছিলেন।
  • যদি আপনি একজন যুদ্ধবিজয়ী হয়ে থাকেন, তাহলে তাঁর(সাঃ) এর জীবনীর অধ্যায় অনুসরণ করতে পারেন কিভাবে তিনি বদর, হুনাইন এবং উহুদ এর যুদ্ধে শত্রুপক্ষের বিরুদ্ধে জয়লাভ করেছিলেন।
  • যদি আপনি পরাজিত কেউ হয়ে থাকেন, তাহলে উহুদ এর যুদ্ধ থেকে নৈতিক শিক্ষা লাভ করতে পারেন কিভাবে তিনি(সাঃ) মৃত এবং আহত সাহাবীদের মধ্যে ছিলেন।
  • আপনি যদি একজন শিক্ষক হয়ে থাকেন, তাহলে তাঁকে(সাঃ) আদর্শ হিসেবে অনুসরণ করুন কিভাবে তিনি মসজিদে সাহাবাদের শিক্ষাদান করতেন।
  • আপনি যদি একজন ছাত্র অথবা উচ্চ শিক্ষালাভে ইচ্ছুক হয়ে থাকেন, তাহলে রাসূল (সাঃ)কে অনুসরণ করুন কিভাবে তিনি ফেরেশতা জিবরাঈল(আঃ) এর দুই বাহুর মাঝখানে বসে ওহী বুঝতেন এবং চর্চা করতেন।
  • আপনি যদি একজন এতিম হয়ে থাকেন, তাহলে আপনার জানা উচিত রাসূল(সাঃ) এর পিতা তাঁর জন্মের পূর্বে এবং মাতা শৈশবকালে ইন্তেকাল করেন।
  • শিশুদের জন্য তিনি সর্বোত্তম আদর্শ কারণ শৈশবে তিনি(সাঃ) তীক্ষ্ণবুদ্ধিসম্পন্ন ছিলেন এবং বাল্যজীবনের প্রথম কিছুকাল তিনি ধাত্রীমাতা হালিমা আসা’দিয়ার কাছে পালিত হন।
  • আপনি যদি একজন তরুণ হয়ে থাকেন তাহলে মক্কার মেষপালক তথা রাসূল(সাঃ) এর জীবনী পড়ুন।
  • আপনি যদি একজন বণিক হিসেবে ব্যবসার পণ্য নিয়ে যাত্রা করেন, তাহলে কাফেলার নেতাকে অনুসরণ করুন কিভাবে তিনি বসরা গিয়েছিলেন।
  • আপনি যদি একজন বিচারক বা মূল্যায়নকারী হয়ে থাকেন, তাহলে রাসূল(সাঃ) এর বিচারের রায়ের প্রতি লক্ষ করুন যখন তিনি কাবা ঘরের সামনে হাজরে আসওয়াদ বা কালো পাথরকে যথাস্থানে বসানোর ঘটনা নিয়ে একে অপরকে মারতে উদ্যত আরব গোত্রের নেতাদের দেখেন এবং অবশেষে শান্তিপূর্ণ সমাধান প্রদান করেন। এছাড়াও তিনি যখন মদীনায় ছিলেন তখন ধনী-গরীব নির্বিশেষে সুষ্ঠু বিচার ও রায় প্রদান করতেন।
  • যদি আপনি একজন স্বামী হয়ে থাকেন, তাহলে খাদিজা(রাঃ) এবং আয়ে’শা(রাঃ) এর সৎ ও মহৎ স্বামী রাসূল(সাঃ) এর জীবনী পড়ুন।
  • এবং আপনি যদি একজন পিতা হয়ে থাকেন, তাহলে কিভাবে সন্তানদের সাথে ব্যবহার করতে হয় তা রাসূল(সাঃ) এর জীবনী থেকে শিক্ষালাভ করুন যেভাবে তিনি তার সন্তান-সন্ততির সাথে আচরণ করতেন।

আপনি যেই হোন না কেন, আপনার কাছে আছে রাসূল (সাঃ) এর জীবনী এবং তাঁর পথনির্দেশনা; যা আপনাকে আপনার প্রাত্যাহিক জীবনের অন্ধকারাচ্ছন্নতা থেকে মশালের আলোর মত পথ দেখিয়ে আলোর পথে নিয়ে যাবে আখিরাতের সাফল্যের দিকে।

চলবে…


'আপনিও হোন ইসলামের প্রচারক'
প্রবন্ধের লেখা অপরিবর্তন রেখে এবং উৎস উল্লেখ্য করে
আপনি Facebook, Twitter, ব্লগ, আপনার বন্ধুদের Email Address সহ অন্য Social Networking ওয়েবসাইটে শেয়ার করতে পারেন, মানবতার মুক্তির লক্ষ্যে ইসলামের আলো ছড়িয়ে দিন। "কেউ হেদায়েতের দিকে আহবান করলে যতজন তার অনুসরণ করবে প্রত্যেকের সমান সওয়াবের অধিকারী সে হবে, তবে যারা অনুসরণ করেছে তাদের সওয়াবে কোন কমতি হবেনা" [সহীহ্ মুসলিম: ২৬৭৪]

পাঠকের মন্তব্য

Loading Facebook Comments ...

5 মন্তব্য

  1. Assalamu Alaikum  Warahmatullah

    Brothers please let me know, how can I buy some books from your websites, please let me know.

    Wassalam

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here